কুড়ি বছর পরে – Kuri Bosor Pore । জীবনানন্দ দাশ - কবিতা

কুড়ি বছর পরে – Kuri Bosor Pore । জীবনানন্দ দাশ - কবিতা কুড়ি বছর পরে কবিতার ব্যাখ্যা পঁচিশ বছর পরে কবিতার ব্যাখ্যা পাতা জীবনানন্দ দাশ কুড়ি বছর পরে কবিতার বৈশিষ্ট্য দেখা হলো বছর কুড়ি পর সন্ধ্যা জীবনানন্দ দাশ জীবনানন্দ দাশ কোন ধরনের কবি ফাল্গুনের কবিতা জীবনানন্দ দাশ


কুড়ি বছর পরে – Kuri Bosor Pore । জীবনানন্দ দাশ - কবিতা
কুড়ি বছর পরে – Kuri Bosor Pore । জীবনানন্দ দাশ - কবিতা

 কুড়ি বছর পরে – Kuri Bosor Pore । জীবনানন্দ দাশ - কবিতা

কুড়ি বছর পরে – Kuri Bosor Pore । জীবনানন্দ দাশ - কবিতা কুড়ি বছর পরে কবিতার ব্যাখ্যা পঁচিশ বছর পরে কবিতার ব্যাখ্যা পাতা জীবনানন্দ দাশ কুড়ি বছর পরে কবিতার বৈশিষ্ট্য দেখা হলো বছর কুড়ি পর সন্ধ্যা জীবনানন্দ দাশ জীবনানন্দ দাশ কোন ধরনের কবি ফাল্গুনের কবিতা জীবনানন্দ দাশ


আবার বছর কুড়ি পরে তার সাথে দেখা হয় যদি!
আবার বছর কুড়ি পরে-
হয়তো ধানের ছড়ার পাশে
কার্তিকের মাসে-
তখন সন্ধ্যার কাক ঘরে ফেরে-তখন হলুদ নদী
নরম নরম হয় শর কাশ হোগলায়-মাঠের ভিতরে!

অথবা নাইকো ধান ক্ষেতে আর,
ব্যস্ততা নাইকো আর,
হাঁসের নীড়ের থেকে খড়
পাখির নীড়ের থেকে খড়
ছড়াতেছে; মনিয়ার ঘরে রাত, শীত আর শিশিরের জল!


জীবন গিয়েছে চলে আমাদের কুড়ি কুড়ি বছরের পার-
তখন হঠাৎ যদি মেঠো পথে পাই আমি তোমারে আবার!
হয়তো এসেছে চাঁদ মাঝরাতে একরাশ পাতার পিছনে
সরু সরু কালো কালো ডালপালা মুখে নিয়ে তার,
শিরীষের অথবা জামের,
ঝাউয়ের-আমের;
কুড়ি বছরের পরে তখন তোমারে নাই মনে!

জীবন গিয়েছে চলে আমাদের কুড়ি কুড়ি বছরের পার-
তখন আবার যদি দেখা হয় তোমার আমার!

তখন হয়তো মাঠে হামাগুড়ি দিয়ে পেঁচা নামে
বাবলার গলির অন্ধকারে
অশথের জানালার ফাঁকে
কোথায় লুকায় আপনাকে!
চোখের পাতার মতো নেমে চুপি চিলের ডানা থামে-


সোনালি সোনালি চিল-শিশির শিকার করে নিয়ে গেছে তারে-
কুড়ি বছরের পরে সেই কুয়াশায় পাই যদি হঠাৎ তোমারে !

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url