নবান্ন – Nobanno । Bangla Kobita - যতীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত

নবান্ন – Nobanno । Bangla Kobita - যতীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত
নবান্ন – Nobanno । Bangla Kobita - যতীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত

 


নবান্ন – Nobanno by Jatindranath Sengupta । Bangla Kobita

নবান্ন – Nobanno by Jatindranath Sengupta । Bangla Kobita - যতীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত নবান্ন উৎসব নবান্ন নিয়ে লেখা নবান্ন কবিতার রচয়িতা কে নবান্ন উৎসব কবিতা নবান্নের ছড়া হেমন্তে নবান্ন অগ্রহায়ণ নিয়ে কবিতা ধানের শীষ নিয়ে কবিতা সোনালী ধান কবিতা




নবান্ন

– যতীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত





এসেছ বন্ধু? তোমার কথাই জাগছিল ভাই প্রাণে,-
কাল রাতে মোর মই প’ড়ে গেছে ক্ষেতভরা পাকা ধানে।
ধান্যের ঘ্রাণে ভরা অঘ্রানে শুভ নবান্ন আজ,
পাড়ায় পাড়ায় উঠে উৎসব, বন্ধ মাঠের কাজ।
লেপিয়া আঙিনা দ্যায় আল্পনা ভরা মরাইএর পাশে;
লক্ষ্মী বোধ হয় বাণিজ্য ত্যাজি’ এবার নিবসে চাষে।
এমন বছরে রাতারাতি মোর পাকা ধানে পড়ে মই!
দাওয়ার খুঁটিতে ঠেস্ দিয়ে বসো,- সে দুখের কথা কই;
বোশেখ, জ্যষ্টি, আষাঢ়, শ্রাবণ, ভাদ্দর, আশ্বিন,-
আশা-আতঙ্কে খেয়াল ছিল না কোথা দিয়ে কাটে দিন।
দুর্যোগে সবে বালির বাঁধনে বাঁধিনু বন্যাধারা,
বুকের রক্ত জল কোরে কভু সেচিনু পাণ্ডু চারা।
কার্তিকে দেখি চারিদিকে,- একি! এবার ত নহে ফাঁকি!
পাঁচরঙা ধানে ছক্-কাটা মাঠ জুড়ায় চাষার আঁখি।
অঘ্রানে থাকে থাকে
কাটিয়া তোলায় খামারে গোলায় যাহার যেমন পাকে।
আমি রোজ ভাবি- ফসলটা নাবি, আরও ক’টা দিন যাক্,
ভরা অঘ্রানে ঘটেনা- ত কোনো দৈব দুর্বিপাক।
মরাই-সারাই শেষ কোরে, সবে খামারে দিইছি হাত,
কাল্কে হঠাৎ,
-বন্ধু, দোহাই, তুলোনাকো হাই, হইনু অপ্রগল্ভ,-
ক্ষমা করো সখা, বন্ধ করিনু তুচ্ছ ধানের গল্প।










Tags: নবান্ন – Nobanno by Jatindranath Sengupta । Bangla Kobita - যতীন্দ্রনাথ সেনগুপ্ত নবান্ন উৎসব নবান্ন নিয়ে লেখা নবান্ন কবিতার রচয়িতা কে নবান্ন উৎসব কবিতা নবান্নের ছড়া হেমন্তে নবান্ন অগ্রহায়ণ নিয়ে কবিতা ধানের শীষ নিয়ে কবিতা সোনালী ধান কবিতা

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url